পরিবেশ ছাড়পত্র ছাড়াই চলছে সুন্দরগঞ্জ হিমেল ব্রিকস ফিল্ড

ক্বারী মোঃ আবু জায়েদ খাঁন, গাইবান্ধা জেলা ব্যুরো প্রধানঃ

সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বামনডাঙ্গা ইউনিয়ননের মনমথ গ্রামের হিমেল ব্রিকস ফিল্ড এই ইটভাটার ১৭ বৎসর ধরে একটি চিমনি দিয়ে কার্যক্রম করে আসছে। যাহার কোনো বৈধ লাইসেন্স ও পরিবেশ ছাড়পত্র নাই বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। এই ঘটনায় গত ০৫ জানুয়ারি ২০২০ ইং তারিখে উক্ত গ্রামের আব্দুল রশিদ মিয়ার ছেলে জহুরুল ইসলাম সহ ৭ ব্যাক্তি গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক বরাবর অভিযোগ করেন। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেড ১০ কার্য দিবসের মধ্যে উপজেলা প্রশাসক সুন্দরগঞ্জ নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সোলেমান আলী বরাবর নোটিশ প্রদান করেন। যার স্মারক নং- ০৫.৫৫.৩২০০.০৪৪.০৩.০০৭.১৯৯৩ তাং ২৭ জানুয়ারি ২০২০ ইং। নোটিশের পরিপ্রেক্ষিতে সুন্দরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিবাদিকে ১৩ জানুয়ারি ২০২০ ইং তারিখে নোটিশ প্রদান করে ১৫ জানুয়ারি ২০২০ এ সুনানি কালে উভয় পক্ষকে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও সাক্ষীসহ যথাসময়ে উপস্থিত থাকার জন্য বলা হয়। পুনরায় আবারো ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২০ ইং তারিখে পুনরায় যাহার স্মারক নং-০৫.৫৫.৩২৯১.০২২.০২.০১২.১৭/১২০ তাং ৩ ফেব্রুয়ারী নোটিশ প্রদান করে ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ এ উপস্থিত থাকতে বলা হয়। অভিযোগে উল্লেখ করা হয় প্রোপাইটার মোজাম্মেল হক তোতার এই ইটভাটার ১০০ গজের মধ্যে একটি বড় বাজার দুইট কেজি স্কুল দুটি আলট্রাসনো ও ডিজিটাল কমিউনিটি ক্লিনিক রয়েছে। এছাড়া বামনডাঙ্গা রেলস্টেশন বামনডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় একটি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ইটভাটার কালো ধোঁয়ায় শ্বাস-প্রশাস নিতে কষ্টবোধ করে বলে অভিযোগে বলা হয়। তাছাড়া উক্ত ভাটার জমাজমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে মর্মে উল্লেখ করা হয়। এ বিষয়ে তোতা মিয়ার সঙ্গে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি এ প্রতিনিধিকে জানান আমার বন্দকী জমি টাকা ফেরত না দিয়েই মোশারফ হোসেন মন্ডল গংরা জমির মালিক অন্যত্র জমি বিক্রয় করে। এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোলেমান আলীর সঙ্গে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বলেন বিরোধটি অতিসত্তর নিষ্পত্তি করার প্রচেষ্টা চলছে।

     আরও খবর দেখুন

ফেসবুক